কলার উপকারিতা kolar upokarita

দেহের অনেক সমস্যা রয়েছে যা রোধে ওষুধের থেকে কলা খুবই কার্যকরী। কলার মধ্যে রয়েছে প্রচুর ভিটামিন ,প্রোটিন এবং বিভিন্ন রকমের পুষ্টিগুণ। এটি খেতেও বেশ মজাদার। সম্প্রতি এক গবেষণায় বলা হয়, এই ফল নারীর ঋতুস্রাব এর সমস্যা সমাধান করে। দেহে শক্তি যোগাতে সাহায্য করে। কলায় থাকে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার। যা দেহে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে।

স্বাস্থ্য বিষয়ক ওয়েবসাইট এ হেলদি ফুড টিম জানিয়েছে দেহে দশটি সমস্যার কথা বলা খুবই উপকারী-

শরীরের উপকারিতায় কলার ভূমিকা

১. কলা শক্তি বা এনার্জির খুবই ভালো উৎস। এর ফলে অনেক খেলোয়ারকে বেশি পরিমাণে কলা খেতে দেখা যায়।

২. কলার মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যামাইনো এসিড। যেটি মানুষের মানসিক চাপ রোধে সাহায্য করে। এর মধ্যে রয়েছে ম্যাগনেসিয়াম ও ক্যালসিয়াম যা মানুষের মধ্যে বিষন্নতা দূর করতে সাহায্য করে।

৩. কলার মধ্যে রয়েছে উচ্চ পরিমাণে ক্যালসিয়াম এবং সামান্য পরিমাণে লবণ যা হৃদপিণ্ড ভালো রাখতে সাহায্য করে, এটি উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে।

৪. প্রতিদিন একটি করে কলা খেলে স্মৃতিশক্তি বাড়ে।

৫. এর মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে আয়রন, যা রক্তে হিমোগ্লোবিনের পরিমাণ বাড়ায়, এবং যেসব রোগীর অ্যানিমিয়া বা রক্তাল্পতা রয়েছে তাদের জন্য এটি খুবই উপকারী।

৬. কলা দেহের হরমোনের ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে।

৭. সন্তানসম্ভবা নারীর জন্য কলা খুবই উপকারী। কারণ এটিসকালবেলার দুর্বলতা কাটাতে সাহায্য করে। এবং রক্তের সামঞ্জস্যতা বজায় রাখতে সাহায্য করে।

৮. কলা পাকস্থলীর অ্যাসিড কে নিয়ন্ত্রণ করে এবং পাকস্থলীর আলসার দূর করতে সাহায্য করে।

৯. এর মধ্যে রয়েছে ছয় ধরনের ভিটামিন। যা রক্তে শর্করা গঠনে সাহায্য করে।

১০. এর মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার। রোজ সকালে একটি করে পাকা কলা খেলে কোষ্ঠকাঠিন্য দূর হবে এবং শরীর ভালো থাকে।