কাঁচা বা পাকা পেঁপের উপকারিতা/Benefits of raw or ripe Papaya

পেঁপে আমাদের শরীরের জন্য খুব উপাদান যুক্ত একটি খাদ্য। এটি আমাদের শরীরের জন্য খুবই উপকারী ও দরকারি। পেঁপে কাঁচা ও পাকা অবস্থায় আমাদের শরীরে জন্য খুবই উপকারী খাদ্য। পেঁপের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে মিনারেল, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ভিটামিন ও নানারকম খনিজ উপাদান থাকায় আমাদের শরীরের জন্য খুবই উপকারী।

পেঁপের উপকারিতা/Benefits of Papaya

১. ব্রণ ও কালো দাগ তুলতে পাকা পেঁপে খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি উপাদান। এক টুকরো পাকা পেঁপে নিয়ে সে জায়গাটুকু ভালো করে ঘষে নিন এবং আধ ঘন্টা রেখে দিয়ে জল দিয়ে ধুয়ে নিন। সপ্তাহে তিন থেকে চারবার এভাবে করতে থাকেন। পেঁপেতে থাকা পেপিন মরা কোষ দূর করে ত্বককে উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে।

এছাড়া রূপচর্চা করতে পেঁপে কি কি কাজে লাগে সেটা জেনে নেওয়া যাক:-

১. এতে রয়েছে ভিটামিন এবং এক ধরনের প্রোটিন যা  ত্বকের মৃতকোষ দূর করতে সাহায্য করে।

২. কাঁচা পেঁপে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে পুরো মুখে লাগালে ব্রণের সমস্যা দূর হয়ে যাবে এবং ব্রণের কালো দাগ চলে যাবে।

৩. পেঁপে বাটা পায়ের ফাটা দূর করে ত্বককে মসৃণ করতে সাহায্য করে। পেঁপের খোসা মুখে,ত্বকে, হাতে , পায়ে লাগিয়ে রাখতে হবে, নিয়মিত ব্যবহারে ত্বক উজ্জ্বল হয়ে উঠবে।

৪. মুখে নিয়মিত পেঁপে লাগালে বয়সের ছাপ দূর হয়ে যাবে।

৫. পেঁপে বাটা ও মধু একসাথে মিশিয়ে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রাখলে ত্বকের শুষ্কতা চলে যাবে এবং ত্বক কোমল হয়ে উঠবে।

৬. চুল শ্যাম্পু করার আগে পেঁপে বাটা বা পেঁপের রস লাগালে খুশকি সমস্যা দূর হয়ে যাবে।

হজম শক্তি বাড়াতে:-

হজমের গোলমাল একটি ব্যাপক সমস্যা। হজম শক্তি কমে গেলে অম্বল হয়ে যায় , মুখে চোখে ঢেকুর ওঠে, পেট ব্যাথা শুরু হয় কখনো চিনচিনে ব্যথা, কখনো ভয়ঙ্কর ব্যথা ওঠে। কখনো কষ্ট পরিষ্কার হয় না কখনো আবার পেট খারাপ হয়। শরীর দুর্বল হয়ে পড়ে ,শরীরে অবস্থা দেখা যায়। পেঁপেতে প্রচুর পরিমাণে এনজাইম আছে যা হজমে সাহায্য করে। এছাড়া পেঁপের মধ্যে উপস্থিত প্রচুর পানি ও ফাইবার হজমের সমস্যা থেকে মানুষকে রক্ষা করে।

৭. রক্ত আমাশয় দেহের একটি মারাত্মক সমস্যা। প্রতিদিন সকালে কাঁচা পেঁপের রস করে তাতে বাতাসার টুকরো মিশিয়ে খেলে এই সমস্যা থেকে খুব তাড়াতাড়ি সমাধান পাবেন।

৮. শরীরে কৃমি বিনাশের জন্য পেঁপে খুব উপকারী উপাদান। পেঁপের আঠা সাথে মধু মিশিয়ে খেতে হবে। তাহলে কৃমি সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন।

৯. আমাশয় ও পেটের যন্ত্রণার জন্য পেঁপের আঠা খুব উপকারী। পেঁপের আঠার সঙ্গে চুনের জল মিশিয়ে খেলে আমাশয় ও পেটে যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

১০. ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য পেঁপে একটা আদর্শ ফল। ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য প্রতিদিন সকালে কয়েক টুকরো পেঁপে খেলে ডায়াবেটিস রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

১১. পেঁপে তো প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম ম্যাগনেশিয়াম পটাশিয়াম কপার ইত্যাদি থাকায় নিয়মিত পেঁপে খেলে শরীরে হাড় বৃদ্ধি পায় ও মজবুত হয়। এছাড়া হাড়ের ব্যথা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

১২. পেঁপে ক্যান্সার প্রতিরোধের জন্য কাজ করে। পেঁপেতে উপস্থিত প্রোটিওলাইটিক এনজাইম ক্যান্সার প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে।

পেঁপেতে ভিটামিন এ সি ইত্যাদি থাকায় আমাদের শরীরের নানা রকম রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করায় পেঁপে। প্রতিদিনই সকালে পেঁপে খেলে শরীরের পক্ষে খুবই উপকারী। এছাড়া পেঁপে তো অনেক রকম উপাদান থাকায় শরীর শুকিয়ে গেলে পেঁপে শরীরকে পুনর্গঠন করতে সহায়তা করে। এছাড়া উচ্চ রক্তচাপ কমাতে। ফাইলেরিয়া রোগ নিয়ন্ত্রণ করতে। মাসিকের সমস্যা নিয়ন্ত্রণ করতে। শ্বাস প্রশ্বাসের সমস্যা নিয়ন্ত্রণ করতে।কোলেস্টেরল হ্রাস করতেও পেঁপে খুব উপকারী।