নিম পাতার উপকারিতা/Advantages of neem leaves

Good effects of Neem

নিম পাতা দেখতে সাধারণ হলেও নিম পাতার ক্ষমতা অসাধারণ। নিমপাতা অনেক রোগ সারাতে সক্ষম। অনেক ওষুধেও নিম পাতা ব্যবহার করা হয়। কয়েকটা করে নিম পাতা খেলে আপনি রোগ মুক্ত থাকতে পারবেন।

নিম পাতার ভালো গুন/The quality of neem leaves

১. শরীরে ভেতর কৃমি হলে নিম পাতা কৃমির বিনাশে খুবই উপকারী। 50 মিলিগ্রাম নিমগাছ আমলের ছালের গুঁড়ো দিন তিন বার তা গরম করে সেই জল পান করুন। দিনে এক থেকে দু বার করলে উপকার পাবেন।

২. মুখে ব্রণ হলে নিমপাতা ব্রণ সারাতে সাহায্য করে। নিম পাতা বেটে তার সাথে হলুদ বেটে গুড়ো করে মিশিয়ে দিন, ব্রণের জায়গায় মিশ্রণটি লাগিয়ে 25 থেকে 30 মিনিট পর ধুয়ে নিন দিনে এক থেকে দু’বার করলে 7 দিনের মধ্যে খুব উপকার পাবেন।

৩. নিমপাতা বুকে ব্যথা সারাতে কাজ করে। বুকে কফ জমলে বুক ব্যথা করে। প্রায় 30 ফোটা নিম পাতার রস সামান্য গরম জলে মিশিয়ে দিনে তিন থেকে চার বার খেতে হবে এতে খুব আরাম পাবেন।

৪. ডায়াবেটিস এর সময় বাসি পেটে/খালি পেটে কয়েকটি গোলমরিচ ও কয়েকটি নিমপাতা বেটে তা খেতে হবে, তাহলে ডায়াবেটিস থেকে আরাম পাবেন।

৫. গায়ে এলার্জি, চুলকানি ও বিভিন্ন রকমের রোগ সারাতে নিম পাতা খুবই উপকারী স্নান করার সময় নিম পাতা গরম করে সেই জল দিয়ে স্নান করলে এলার্জি থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। নিমপাতা বেটে ছোট ছোট করে গুলির মত বানিয়ে শুকোনোর পর খালি পেটে একটা করে খেলে চর্মরোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

৬. কোন পোকা মাকর কামড় দিলে অথবা মৌমাছি হুল ফোটালে সেই ক্ষত জায়গায় নিমপাতা বেটে লাগালে খুব উপকার পাওয়া যায়। এবং ভেতরের বিষ নষ্ট হয়।

৭. জন্ডিস হলে নিমের রস প্রতিদিন সকালে খাওয়া ভালো। এতে জন্ডিস থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

৮. নিম পাতা দাঁতের জন্য খুব উপকারী। নিম পাতার কচি ডাল দিয়ে দাঁত মাজলে,দাঁত পরিষ্কার ও নষ্ট হওয়া থেকে রোধ হয়। নিমপাতার জল দিয়ে মুখ কুলকুচি করলে মুখ গন্ধ ও দাঁত পচা থেকে মুক্তি পায়।

এইসব হল নিমপাতার গুণাবলী।